নাক কান গলা রোগ, স্বাস্থ্য বিষয়ক ব্লগ

গলায় কাঁটা বিদ্ধ হওয়া ও সকল পদ্ধতির ডাক্তারদের বক্তব্য।

গলায় কাঁটা বিদ্ধ হওয়া

গলায় কাঁটা বিদ্ধ হওয়া একটি সাধারণ ঘটনা। মাছের কাঁটা ও হাড়ের ক্ষুদ্র ধারালো, টুকরো উভয়ই গলায় আটকাতে পারে।

কাটা দেখা গেলে তা আঙ্গুলের সাহায্যে বের করে আনতে হবে। যদি কাঁটা আকারে বড় না হয় আর না দেখা গেলে এ দলা কুসুম গরম ভাত নিয়ে ভালভাবে না চিবিয়ে গিলে ফেলতে হবে। তাতে কাটা না গেলে কলা খাওয়া যেতে পারে। তাতেও কাজ না হলে কুসুম গরম পানিতে সামান্য লবণ দিয়ে দিনে ৩-৪ বার গড়গড়া করে কুলি করলে ব্যথার উপশম হতে পারে এবং কাঁটা চলে যেতে পারে।

বেদনা নাশক ঔষধ প্রয়োগ করা যেতে পারে। এতে বেদনাঅনুভূতি হ্রাস পাবে। যেমন:

১) এনালজেসিক: এর সাথে এন্টি আলসারেন্ট সেবন করতে হবে)।

। জেনেরিক: আইবুপ্রোপ্রোফেন (1buprofen)।

ব্র্যান্ড-ফ্লামেক্স (Flamex)-400, প্রস্তুতকারক-এ. সি. আই।

ডোজ : v প্রাপ্ত বয়স্ক : ৪০০ মিগ্রা (১ টি ট্যাব) দিনে ৩ বার ভরা পেটে, ৩-৫ দিন।

ডাঃ আব্দুল্লাহ আল কাইয়ুম

৮২৯

মেডিসাইন্স পাবলিকেশন্স

গলার রোগ

v শিশু : ১-২ বছর : আধা চামচ সিরাপ দিনে ৩-৪ বার। ৩-৭ বছর: ১ চা

চামচ সিরাপ দিনে ৩-৪ বার। ৪-১২ বছর : ২ চা চামচ সিরাপ দিনে ৩-৪

বার, ৩-৫ দিন।

২) এন্টি আলসারেন্ট: 

ক) জেনেরিক: ইসোমেপ্রাজল (Esomeprazole); ব্রান্ড: ট্যাব-অপটন-২০ (Opton-20) প্রস্তুত কারক-বেক্সিমকো । ডোজ: প্রাপ্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে সকালে ও রাতে খাবার ৩০ মি পূর্বে-১০ দিন। খ) জেনেরিক: রেনিটিডিন; ব্রান্ড-নিওসেপটিন আর, প্রস্তুতকারক: বেক্সিমকো।

ডোজ:

০ ৮ বছরের অধিক : ১ টি ট্যাবলেট সকাল+রাত খাবার ৩০ মিনিট পূর্বে । ০ ৪-৮ বছর : ৭৫ মিগ্রা (১ চামচ) দিনে ২ বার খাবার ৩০ মিনিটি পুর্বে।

 

এর জন্য অনলাইনে আমাদের অবিজ্ঞ দাক্তারদের থেকে পরামর্শ নিতে এখানে ক্লিক করুন  এপয়েন্টমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *