দাঁত ও মুখের রোগ, স্বাস্থ্য বিষয়ক ব্লগ

মুখে দুর্গন্ধ হওয়ার কারণ ও সকল পদ্ধতির ডাক্তারদের বক্তব্য।

মুখে দুর্গন্ধ থাকা

মুখে দুর্গন্ধ থাকার অন্যতম প্রধাণ কারণ দাঁতের গোড়ার ইনফেকশন। এছাড়াও পরিপাক তন্ত্রের ও গলার সমস্যাতেও মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে।

প্রাথমিক চিকিৎসা

সাধারণ ব্যবস্থাপনা।

১। মুখের পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা, নিয়মিত সঠিক নিয়মে ব্রাশ করা।

২। কুসুম গরম পানিতে লবন দিয়ে ভালকরে কুলি করা দিনে ৩-৪ বার।

৩। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার (যেমন-লেবু) খাওয়া।

৪। ভিটামিন বি কমপ্লেক্সযুক্ত খাবার খাওয়া।

ঔষধ

১) এন্টিবায়োটিক

ক) জেনেরিক: এমক্সিসিলিন (amoxicillin)

। ০ ব্রান্ড: ফাইমোক্সিল (Fimoxyl) ০ ডোজ:

। প্রাপ্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে (১২ বছরের উদ্ধে) :

৫০০ মিগ্রা দিনে তিনবার। শিশু: শিশুদের ক্ষেত্রে সিরাপ । ৫-১২ বছর :

১.৫ চামচ থেকে ২ চামচ সিরাপ দিনে তিন বার

| ৭ দিন। খ) জেনেরিক: মেট্রোনিডাজল;

ব্রান্ড – ফিলমেট; (filmet) প্রস্তুতকারক-বেক্সিমকো ডোজ : প্রাপ্ত বয়স্ক : প্রতিবার ৪০০ মিগ্রা দিনে তিনবার ৫-৭

দিন। ২) মাউথ ওয়াস (প্রাপ্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে)

। জেনেরিক: পভিডন আয়োডিন মাউথ ওয়াস

ব্র্যান্ড-ভয়োডিন মাউথ ওয়াস, প্রস্ততকারক: স্কয়ার

ডোজ: ৫-১০ মিলি ঔষধ মুখে নিয়ে ভালভাবে কুলকুচি করা।

গ) টুথপেষ্ট: মেডিপ্লাস ডিএস টুথপেষ্ট। সকালে নাস্তার পর ও রাতে খাবার পর ব্রাশ করতে হবে।

পরবর্তীতে রোগীকে একজন বিডিএস দন্ত চিকিৎসকের নিকট প্রেরণ করতে হবে ।

 

আমাদের অবিজ্ঞ দাক্তারদের থেকে পরামর্শ নিতে এখানে ক্লিক করুন  এপয়েন্টমেন্ট 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *