স্বাস্থ্য বিষয়ক ব্লগ, হরমোন ও মেটাবোলিক রোগ

হরমোনাল রোগের লক্ষণসহ ব্যবস্থাপণী ও সকল পদ্ধতির ডাক্তারদের বক্তব্য।

হরমোনাল রোগের লক্ষণসহ ব্যবস্থাপণী

হরমোনাল রোগের লক্ষণ ও ব্যবস্থাপণী

হরমোনাল রোগ বলতে এন্ডোক্রাইন গ্ল্যান্ডের বিভিন্ন রোগ/রোগাবস্থাকে নির্দেশ করে। এ ধরনের রোগীদের ক্ষেত্রে এন্ডোক্রাইনোলজিস্ট (হরমোন বিশেষজ্ঞ) কিংবা মেডিসিন বিশেষজ্ঞ উপযুক্ত চিকিৎসক।

 

হরমোনাল রোগের সাধারণ কারণ

জন্মগত ত্রুটি

বংশগত প্রভাব।

অপুষ্টি; যেমন- আয়োডিনের অভাব

ঔষধ; যেমন-স্টেরয়েড

 

প্রতিরোধের উপায়

গর্ভাবস্থার পূর্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া।

গর্ভাবস্থায় নিয়মিত চেকআপ করানো।

শিশু জন্মের ৭২ ঘন্টার মধ্যে শিশুকে শিশু বিশেষজ্ঞ দ্বারা পরীক্ষা করানো।

খাদ্য ও পুষ্টি সম্পর্কে জানা ও অপুষ্টি প্রতিরোধ করা।

এমবিবিএস চিকিৎসকের পরামর্শ ব্যতিত স্টেরয়েড সেবন বা ব্যবহার না

করা।

নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো।

 

হরমোনাল সমস্যার সাধারণ লক্ষণ।

হরমোনাল সমস্যাগুলোকে দুটি অংশে বিভক্ত করা যায়।

১. প্রজনন সংক্রান্ত:

পুরুষ প্রজনন সংক্রান্ত: পুরুষদের হরমোন জণিত সমস্যা যা মূলত প্রজননতন্ত্রের সমস্যা সৃষ্টি করে। এ সংক্রান্ত বিষয় পুরুষ প্রজননতন্ত্রের রোগে আলোচ্য।

নারী প্রজনন সংক্রান্ত নারীদের হরমোেন জণিত সমস্যা যা মূলত প্রজননতন্ত্রের সমস্যা সৃষ্টি করে। এ সংক্রান্ত বিষয় নারী প্রজননতন্ত্রের রোগে আলোচ্য।

 

২. সার্বজনিন: এ ধরনের সমস্যাগুলো নারী পুরুষ উভয়েরই হতে পারে। এগুলো প্রজনন অঙ্গের সাথে প্রত্যক্ষভাবে সম্পর্কিত নয়। তবে সার্বদৈহিক সমস্যা হিসেবে প্রজননতন্ত্রেরও সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। সার্বজনীন হরমোন সমস্যা সংক্রান্ত লক্ষণগুলো হলো আমাকে

শরীর ক্লান্ত লাগা।

শরীরে গরম অনুভূতি বৃদ্ধি পাওয়া।

শরীরে শীত অনুভূতি বৃদ্ধি পাওয়া।

দেহ মুটিয়ে যাওয়া।

আকস্মিক স্বাস্থ্য খারাপ হওয়া।

গলার সামনের অংশে স্ফিতি।

আকস্মিকভাবে চোখ বড় বড় হয়ে যাওয়া।

পায়ের গোড়ালীতে পানি আসা।

বুক ধরফর করা।

ঘন ঘন পিপাসা পাওয়া।

বার বার ক্ষুধা লাগা। v দেহের ক্ষতস্থান সহজে আরোগ্য না হওয়া।

শরীরে / শরীরের বিভিন্ন স্থানে পানি আসা। | প্রজনন অঙ্গের সমস্যা।

যৌন সমস্যা । / বন্ধ্যাত্ব ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *