স্বাস্থ্য বিষয়ক ব্লগ, হাড় ও সন্ধি রোগ

গাউট রোগের লক্ষণ ও সকল পদ্ধতির ডাক্তারদের বক্তব্য।

গাউট 

কিছু কিছু সন্ধিতে ইউরিক এসিড নামক বর্জ্য পদার্থের ক্রিস্টাল জমে গিয়ে গাউট সৃষ্টি করে। সাধারণত দেহের পা ও হাতের সন্ধিতে এই সমস্যা বেশি দেখা যায়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পায়ের বুড়ো আঙ্গুল প্রথমে আক্রান্ত হয়। এই রোগেও সন্ধি ফুলে যায়, লাল হয়, বেদনা হয় ইত্যাদি। যাদের গাউট রয়েছে তাদের কিডনীতে পাথর হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে আবার যাদের কিডনীতে পাথর হয়েছে তাদেরও গাউট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এই রোগের চিকিৎসাও কিছু কিছু ক্ষেত্রে দীর্ঘমেয়াদী।

 

[ বিঃ দ্রঃ- বাত বলে প্রকৃতপক্ষে কোন রোগ নেই। তাই দেহের পেশী, সন্ধির বেদনাকে বাত বলে অবহেলা করা যাবেনা। সময়মত চিকিৎসা না হলে পরিণাম। মারাত্নক হতে পারে।

ডাঃ আব্দুল্লাহ আল কাইয়ুম ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *