Home » গাছের চারা » ফুল গাছ

Showing 1–12 of 33 results

Alexander আলেকজান্ডার

৳ 200.00

অক্টোবর-নভেম্বর মাস চারা লাগানোর উপযুক্ত সময়। দীর্ঘস্থায়ী সূর্যের আলোযুক্ত খোলামেলা আবহাওয়া ফুল উৎপাদনের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজন। মোটামুটি ঠান্ডা আবহাওয়ায় গোলাপ ভালো জন্মায়।

n

গোলাপ চাষের জন্য পানি নিষ্কাশনের সুবিধাসহ বেলে দো-আঁশ, দো-আঁশ অথবা এঁটেল দো-আঁশ মাটি সবচেয়ে উপযোগী। মাটির পিএইচ ৬-৭ এর মধ্যে থাকা উচিত।

Allamanda Hybrid Off White এলামান্ডা হাইব্রিড সাদা

৳ 200.00
এটি একটি পুষ্পধারী ঝোপজাতীয় গাছ । এটা শোভাবর্ধনকারী গাছ।   এই গাছ রোপনের উপযুক্ত সময় বর্ষাকাল। তবে শীতকাল এর পরে রোপন করা যায়।

Azalea White এজালিয়া সাদা

৳ 200.00
এটি একটি পুষ্পধারী ঝোপজাতীয় গাছ । এই গাছ বছরের যেকোন সময় রোপন করা যায়। এর ফুল সারা বছরই দিয়ে থাকে, তবে বর্ষা কালে সবথেকে বেশি ফুল ফোটে। এই গাছ বাগানে, বাড়ির উঠানের পাশে, ছাদে রোপন করা যায়। শীতকাল এর পড়ে রোপন করা হল উপযুক্ত সময়।

Begonia বেগুনিয়া

৳ 200.00
ফুল বেগুনিয়া, চিনির ফুল বা কেবল বেগনিয়া হিসাবে পরিচিত, এটি একটি বহুবর্ষজীবী হার্বেসিয়াস উদ্ভিদ তবে শীতকালে বা শীতল আবহাওয়ায় এটি বার্ষিক বা seasonতু হিসাবে আচরণ করে। এটি ব্রাজিলের স্থানীয়, যদিও বর্তমানে এটি বিশ্বের সমস্ত উষ্ণ অঞ্চলেও চাষ হয়।

Bougainvillea Doctor Roy বাগান বিলাস ডক্টর রয়

এটি একটি পুষ্পধারী ঝোপজাতীয় গাছ । এই গাছ বছরের যেকোন সময় রোপন করা যায়। এর ফুল সারা বছরই দিয়ে থাকে, তবে বর্ষা কালে সবথেকে বেশি ফুল ফোটে। এই গাছ বাগানে, বাড়ির উঠানের পাশে, ছাদে রোপন করা যায়। শীতকাল এর পড়ে রোপন করা হল উপযুক্ত সময়।

Christmas Rose ক্রিস্টমাস রোজ

৳ 200.00
হেলেবোরাস নাইজার কে সাধারণত ক্রিসমাস রোজ বা কালো হেলেবোর বলা হয়। ফুলটি বাটারকাপ পরিবারের চিরহরিৎ বহুবর্ষজীবি ফুলের উদ্ভিদ। এটি একটি বিষাক্ত ফুল। যদিও ফুলগুলি বন্য গোলাপের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ, ফুলটি গোলাপ পরিবারের (Rosaceae) অন্তর্গত নয়।

Cosmos tree কসমস গাছ

৳ 200.00

এটি সাধারনত শীতকালীন ফুল। নভেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারী পযর্ন্ত এই ফুল ফুটে থাকে। অক্টোবর থেকে নভেম্বর মাস চারা রোপনের উপযুক্ত সময়।আপনার বাগানে, ছাদে, টবে, লনে চারা রোপন করা যাবে।

nবনায়নে আপনি ছোট, মাঝারি, বড় তিট ধরনের চারা অর্ডার করতে পারবেন।

Crape Jasmine ডাবল টগর

উদ্ভিদটি সাধারণত ১.৫-৪ মিটার লম্বা এবং চিরসবুজ। পাতা ৫-১২×২-৫ সেমি, উজ্জ্বল সবুজ, নিচ ফ্যাকাসে ও মসৃণ। শীতকাল ছাড়া প্রায় সারা বছরই ফুল ধরে। ফুল গন্ধহীন ও সুগন্ধি উভয়ই হতে পারে, পাতার কক্ষে বা ডালের আগায় সাদা ফুলের থোকায় গাছ ভরে থাকে।

Lantana Camara লান্টানা

৳ 200.00
লান্টানা বা পুটুস বা ছত্রা হল ভারবেনা বা ভারবেনাস পরিবারভূক্ত একটি ফুলের প্রজাতি, এর উদ্ভিদতাত্ত্বিক নাম হল Lantana camara এবং এর আদি নিবাস ক্রান্তীয় আমেরিকা। বর্তমানে এশিয়ার বাংলাদেশ ও ভারতসহ সর্বত্রই পাওয়া যায়।

Promelia পুমেলিয়া

৳ 200.00
ভূমিকা: পুমেলিয়া হলো এ্যাসপারাগাসি পরিবারের সপুষ্পক উদ্ভিদের গণ। বাংলাদেশে এই গণের ৩টি প্রজাতি পাওয়া যায়ছোট কাঠগোলাপ,সিঙ্গাপুরি কাঠগোলাপ,পাতি  কাঠগোলাপ। n nবিবরণ: তরুক্ষীরবাহী গুল্ম বা ছোট বৃক্ষ। কাণ্ড সাধারণত প্রশস্ত মজ্জা বিশিষ্ট ফাঁপা, কর্কবৎ। পত্র একান্তর বা সর্পিল, অধিকাংশ ক্ষেত্রে শাখার শীর্ষে গুচ্ছিত, কক্ষে গ্রন্থিল, সবৃন্তক বা অর্ধ-বৃন্তক। সাইম কাক্ষিক বা প্রান্তীয়, দ্ব্যাগ্র শাখাবিন্যাস, সমভূমঞ্জরী বা থায়ারসিফর্ম।

Tabernaemontana Chinese চাইনিজ টগর

৳ 200.00
ঝাঁকড়া মাথার জন্য টগর গাছ সুন্দর। ডালগুলোও সোজা ওঠে না, বহু শাখা-প্রশাখা নিয়ে ঝোঁপের মতো বাগানের শোভা বাড়ায়। সুন্দর করে ছেঁটে দিলে চমৎকার ঘন ঝোঁপ হয়। কলম করে চারা করা যায়, আবার বর্ষাকালে ডাল পুতলেও হয়। টগর সমতল ভূমির গাছ। পর্বতের প্রত্যন্ত অঞ্চলেও দেখা যায়। বাংলাদেশের বনে-বাদাড়ে টগর এমনিতেই জন্মে। টগরের কাণ্ডের ছাল ধূসর। গাছের পাতা বা ডাল ছিঁড়লে সাদা দুধের মতো কষ ঝরে বলে একে "ক্ষীরী বৃক্ষ" বলা যায়। পাতা ৪-৫ ইঞ্চি পর্যন্ত লম্বা ও এক দেড় ইঞ্চি চওড়া হয়। পাতার আগা ক্রমশ সরু। ফুল দুধ-সাদা। সারা বছর ফুল ফোটে। থোকা টগরের সুন্দর মৃদু গন্ধ হয় কিন্তু একক টগরের গন্ধ নেই। ফুল থেকে ফলও হয়। তার মধ্যে ৩ থেকে ৬ত টি বীজ হয়। বড় টগরের বোঁটা মোটা এবং একক ফুল হয়। পাতাও একটু বড়। n nটগরের মূল ও শেকড় ওষুধে ব্যবহৃত হয়। শেকড় তেতো ও কটু স্বাদের। এতে কৃমি ও চুলকানি দূর হয়। ঘামাচিতে টগরের কাঠ ঘষে প্রতিদিন চন্দনের মতো গায়ে মাখলে উপকার হয়। অনেকে টগরের কাঁচা ডাল চিবিয়ে দাঁতের অসুখ সারায়।

এডেনিয়াম ফুল গাছ – Adenium

৳ 400.00
অ্যাডেনিয়াম বা মরু গোলাপ গাছে- লাল, মেরুন, গোলাপি, ঘিয়ে, সাদা, হলদে, নীলাভ ইত্যাদি নানা রঙের ফুল ফোটে। বারান্দায় কম যত্নেই এ গাছ প্রাণ উজাড় করে ফুল দেয়।