নাক কান গলা রোগ, স্বাস্থ্য বিষয়ক ব্লগ

সাইনোসাইটিস দূর করার উপায় ও সকল পদ্ধতির ডাক্তারদের বক্তব্য।

সাইনোসাইটিস দূর করার উপায়

সাইনুসাইটিস

নাকের চারপাশে কিছু বায়ু পূর্ণ হাড় রয়েছে। এগুলোর আভ্যন্তরস্থ মিউকোসার ইনফ্লামেশন হলে তাকে সাইনুসাইটিস বলা হয়। নাকের হাড় বাঁকা থাকা, ন্যাসাল পলিপ, নাকের হাড় স্ফিত হওয়া ইত্যাদি কারনে এটি হতে পারে। এর ফলে রোগী মাথা ব্যথা অনুভব করে; বিশেষত চোখের ঠিক উপরে। আবার কারো কারো ক্ষেত্রে উপরের চোয়ালে ব্যথা হতে পারে।

প্রাথমিক চিকিৎসা 

১। মাথা ব্যথা হলে মাথা ব্যথার ব্যবস্থাপনা মেনে চলতে হবে।

২। পানির বাস্পের আঘ্রান সাইনুসাইটিসের উপশম ঘটায়।

 

ঔষধ

১। এন্টিবায়োটিক জেনেরিক: এমোক্সাসিলিন ব্র্যান্ড: ফাইমোক্সিল ক্যাপসুল ৫০০: ডোচ: প্রাপ্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে ৫০০ মি.গ্রা. ক্যাপসুল দিনে দুটি করে ৭ দিন। এ শিশুদের ক্ষেত্রে সিরাপ ৮ ॥ ৫-১২ বছর : ১.৫ চামচ থেকে ২ চামচ সিরাপ দিনে তিন বার ৭ দিন।

২। এন্টিহিস্টামিন জেনেরিক: ফেক্সোফেনাডিন (fexofenadine) করা ) ব্রান্ড: ফেনাডিন (Fenadine)। ডোজ

প্রাপ্ত বয়স্ক (১২ বছরের ঊর্ধে): ৬০-১৮০ মিগ্রা দৈনিক। । শিশু- ২ বছর থেকে ১১ বছর : ৩০ মিগ্রা দিনে ১-২ বার।

৩। এনালজেসিক

জেনেরিক: প্যারাসিটামল ফাস্ট রিলিজ ব্র্যান্ড: নাপা র‍্যাপিড (NAPA RAPID) প্রস্তুতকারক: বেক্সিমকো । ডোজ:

০ প্রাপ্ত বয়স্ক: ১ টি ট্যবলেট দিনে তিন বার। ২

০ শিশু-৫ থেকে ১২ বছর : নাপা সিরাপ ২ চামচ দিনে।

তুর ৩ বার। * ৪। ন্যাসাল ড্রপ

= জেনেরিক; নরমাল স্যালাইন ন্যাসাল ড্রপ; ব্র্যঠহু-নরসল কি

ডোজ: দুই-তিন ফোটা করে দিনে দুই তিন বার।

উন্নত চিকিৎসার জন্য নাক কান গলা চিকিৎসকের নিকট প্রেরণ করতে হবে।

ডাঃ আব্দুল্লাহ আল কাইয়ুম

৮০৪

মেডিসাইন্স পাবলিকেশন্স

নাকের রোগ

 

অনলাইনে আমাদের অবিজ্ঞ দাক্তারদের থেকে পরামর্শ নিতে এখানে ক্লিক করুন  এপয়েন্টমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *